WB Class X

WBBSE class X study related contents

সামাজিক বন সৃজন

সামাজিক বন সৃজন [Social Forestation] :- সমাজের মঙ্গলের জন্য, অর্থাৎ পরিবেশের সুস্থতা, জীব জগতের ভারসাম্য বজায় রাখা এবং জনসাধারণের চাহিদা পূরনের জন্য জনগণের সহায়তায় বন সৃজন করা হলে, তাকে সামাজিক বন সৃজন বলে ।

ভারতে বনভূমি সংরক্ষণের প্রয়োজনীয়তা

ভারতে বনভূমি সংরক্ষণের প্রয়োজনীয়তা [Requirements of Preservation of Indian Forest]:- জনজীবনে বনভূমির প্রভাব অপরিসীম । প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে নান রকম উপকার বনভূমি থেকে পাওয়া যায়— যেমন

ম্যানগ্রোভ বনভুমি

ম্যানগ্রোভ বনভুমি [Mangrove Forest] :- নদীর বদ্বীপ অঞ্চল ও অন্যান্য নিচুস্থান, যেখানে সমুদ্রের লোনা জল প্রবেশ করে, সেইসব অঞ্চলে যে বনভুমির সৃষ্টি হয় তাকে ম্যানগ্রোভ বনভুমি বলে । ম্যানগ্রোভ জাতীয় গাছের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হল— এই সব গাছের শিকড় নদীর জোয়ারের সময় শ্বাসপ্রশ্বাস নেওয়ার জন্য মাটি ফুঁড়ে উপরে ওঠে, একে শ্বাসমূল বলে । এছাড়া কান্ডকে সোজাভাবে ধরে রাখার জন্য এইসব গাছে ঠেসমূলও দেখা যায় । পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের দক্ষিণে অবস্থিত সুন্দরবন হল ভারতের একটি উল্লেখযোগ্য ম্যানগ্রোভ অরণ্যের উদাহরণ । এছাড়া ভারতের গঙ্গা, মহানদী, গোদাবরী, কৃষ্ণা প্রভৃতি

মরু অঞ্চলের উদ্ভিদ

মরু অঞ্চলের উদ্ভিদ [Desert plant]:-  ভারতের যেখানে বার্ষিক বৃষ্টিপাত ৫০ সেন্টিমিটারের কম এবং উত্তাপ খুব বেশি, সেখানে জলের অভাবে ক্যাকটাস বা কাঁটাজাতীয় গাছ জন্মায় । বাবলা, ফনিমনসা, তেশিরা প্রভৃতি হল ভারতের উল্লেখযোগ্য কাঁটা জাতীয় গাছ । অপেক্ষাকৃত আর্দ্র অঞ্চলে বুনো খেজুর, তাল, বেবি প্রভৃতি উদ্ভিদ দেখা যায় ।

***

 

গুল্ম ও তৃণ অঞ্চল

গুল্ম ও তৃণ অঞ্চল [Shrub and Grass Areas] :- ভারতের যেখানে বার্ষিক বৃষ্টিপাত ৫০ সেন্টিমিটার থেকে ১০০ সেন্টিমিটার, সেখানে বড় গাছ না জন্মে তৃণ বা গুল্মের জন্ম হয় । ভারতে সাবাই, কাশ, মঞ্জু ইত্যাদি জাতীয় ঘাস কাগজ প্রস্তুত করতে প্রযোজন হয় এবং অন্যান্য ঘাস ঘর ছাওয়ার কাজে লাগে । আরাবল্লীর পূর্বাংশ, গুজরাট, পশ্চিমঘাট পর্বতমালার বৃষ্টিচ্ছায় অঞ্চলে এই বনভুমি দেখা যায় ।

***

 

পর্ণমোচী বৃক্ষের বনভূমি

পর্ণমোচী বৃক্ষের বনভূমি [Deciduous woodland]:- ভারতের যেখানে বার্ষিক বৃষ্টিপাত ১০০ সেন্টিমিটার থেকে ২০০ সেন্টিমিটার, সেখানে পর্ণমোচী বৃক্ষের অরণ্য দেখা যায় । এই সব বৃক্ষ তার পাতাগুলি নির্দিষ্ট সময়ে মোচন করে অর্থাৎ পাতাগুলি ঝরে যায় আবার নতুন পাতা জন্মায় । শাল, সিমুল, সেগুন, জারুল, মহুয়া, পলাশ, শিরিস, বট, অশ্বত্থ, কুসুম, আম, কাঁঠাল প্রভৃতি পর্ণমোচী বৃক্ষের উদাহরণ । এদের মধ্যে কোনও কোনও গাছের ফল খাদ্য হিসাবে ব্যবহৃত হয় । উত্তরপ্রদেশ, বিহার, ওড়িশা, মধ্যপ্রদেশ, পশ্চিমঘাট পর্বতমালা প্রভৃতি অঞ্চলে পর্ণমোচী বৃক্ষের বনভুমি দেখা যায় ।