WB Class X

WBBSE class X study related contents

ভারত মহাসাগরের স্রোত

Submitted by administrator on Fri, 11/08/2013 - 10:48

ভারত মহাসাগরের স্রোত [Indian Ocean Current] :-ভারত মহাসাগর আয়তনে পৃথিবীর তৃতীয় বৃহত্তম মহাদেশ । ভারত মহাসাগরের উত্তরে এশিয়া মহাদেশ, পশ্চিমে আফ্রিকা মহাদেশ এবং পূর্বে ওশিয়ানিয়া মহাদেশ দিয়ে ঘেরা । ভারত মহাসাগরের উত্তর অংশ স্থলভাগ দিয়ে ঘেরা থাকায় ঋতু পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে এখানে স

আটলান্টিক মহাসাগরের স্রোত

Submitted by administrator on Thu, 11/07/2013 - 16:57

আটলান্টিক মহাসাগরের স্রোত [Atlantic Ocean Current]:- আটলান্টিক মহাসাগর হল পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম মহাসাগর । এর আকৃতি অনেকটা ইংরেজি ‘S’ অক্ষরের মতো । আটলান্টিক মহাসাগরের পূর্বে ইউরোপ ও আফ্রিকা মহাদেশ, পশ্চিমে উত্তর আমেরিকা ও দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশ, উত্তরে সুমেরু মহাসাগর এবং দক্ষি

প্রশান্ত মহাসাগরের স্রোত

Submitted by administrator on Thu, 11/07/2013 - 12:09

প্রশান্ত মহাসাগরের স্রোত [Pacific Ocean Current] :- প্রশান্ত মহাসাগর হল পৃথিবীর বৃহত্তম মহাসাগর । এর মোট আয়তন পৃথিবীর সমস্ত স্থলভাগের মিলিত আয়তনের চেয়েও বেশি । প্রশন্ত মহাসাগরকে দেখতে অনেকটা ত্রিভূজের মতো । প্রশান্ত মহাসাগরের স্রোতগুলির বৈশিষ্ট্য লক্ষ করলে দেখা

সমুদ্রস্রোতের গতি ও দিক নিয়ন্ত্রক

Submitted by administrator on Wed, 11/06/2013 - 22:57

☼ সমুদ্রস্রোতের গতি ও দিক কয়েকটি বিষয়ের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়, যথা :-

(১) সমুদ্রস্রোত নিয়ত বায়ুপ্রবাহের দিকে বয়ে চলে ।

(২) ফেরেলের সুত্র অনুযায়ী পৃথিবীর আবর্তন গতির জন্য বায়ুপ্রবাহের মত সমুদ্রস্রোতও উত্তর গোলার্ধে ডানদিকে এবং দক্ষিণ গোলার্ধে বামদিকে বেঁকে প্রবাহিত হয় ।

সমুদ্রস্রোত ও সমুদ্রস্রোতের উত্পত্তির কারণ

Submitted by administrator on Wed, 11/06/2013 - 11:28

সৃষ্টির প্রথম অবস্থায় পৃথিবী ছিল এক উত্তপ্ত জ্বলন্ত মন্ডল । ধীরে ধীরে শীতল ও ঘনীভূত হয়ে তরল অবস্থায় আসে এবং অবিরাম তাপ বিকিরণ করে পৃথিবী ক্রমশ শীতল ও সংকুচিত হয় । আর সংকোচনের ফলে ভূপৃষ্ঠের গায়ে উঁচুনীচু আবরণের সৃষ্টি হয় । এই সময় পৃথিবীতে গ্যাস ও বাষ্প শীতল হয়ে অঝোরে বৃষ্টি শুরু হয় । সেই বৃষ্টির জ

বায়ুমণ্ডলের স্তরবিন্যাস

Submitted by administrator on Wed, 11/06/2013 - 08:18

বায়ুমণ্ডলের স্তরবিন্যাস [Layers of the Atmosphere] :- উচ্চতা, উষ্ণতা ও উপাদানের ভিত্তিতে পৃথিবীর চতুর্দিকের বায়ুমণ্ডলকে বিভিন্ন স্তরে ভাগ করা যায়, যেমন-

(১) ট্রোপোস্ফিয়ার,    (২) স্ট্রাটোস্ফিয়ার,    (৩) আয়নোস্ফিয়ার    (৪) এক্সোস্ফিয়ার  এবং    (৫) ম্যাগনেটোস্ফিয়ার ।

আবহাওয়া ও জলবায়ুর উপাদান

Submitted by administrator on Thu, 10/31/2013 - 10:41

☼ আবহাওয়া  [Defination of Weather] :- কোনও নির্দিষ্ট জায়গার কোনও নির্দিষ্ট দিনের বা কয়েকদিনের বায়ুর তাপ, চাপ, বায়ুপ্রবাহ, বৃষ্টিপাত প্রভৃতির অবস্থাকে আবহাওয়া [Weather] বলে ।  বিভিন্ন দিনে, এমনকি যে কোনো দিনের বিভিন্ন সময়ে, আবহাওয়ার পরিবর্তন ঘটে ।

বায়ুমণ্ডল ও বায়ুমণ্ডলের গঠন

Submitted by administrator on Thu, 10/31/2013 - 10:36

বায়ুমণ্ডলের সংজ্ঞা [Defination of Atmosphere]:- ভূপৃষ্ঠ থেকে ঊর্ধ্বে যে অদৃশ্য গ্যাসের আবরণ পৃথিবীকে বেষ্টন করে আছে, তাকে বায়ুমণ্ডল [Atmosphere] বলে । বায়ুমণ্ডলকে চোখে দেখা যায় না, শুধু এর অস্তিত্ব আমরা অনুভব করতে পারি । পৃথিবীর মাধ্যাকর্ষণ শক্তির প্রভাবে এই বায়ুমণ্ডল পৃথিবীর