WB Class X

WBBSE class X study related contents

ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু অঞ্চল

এশিয়া মহাদেশের ভূমধ্যসাগরের নিকটবর্তী অতি সামান্য অঞ্চল যেমন— তুরস্ক, লেবানন, সিরিয়া, এবং ইস্রাইলে ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু দেখা যায় ।

ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ুর বৈশিষ্ট্য—

(১) শীতকালীন বৃষ্টিপাত সাধারণত ২৪ সেমি. থেকে ৭৫ সেমি হয়,

(২) বৃষ্টিহীন শুষ্ক গ্রীষ্মকাল এবং নাতিশীতোষ্ণ মৃদু জলবায়ু । গ্রীষ্মকালীন তাপমাত্রা ২১° থেকে ২৭° সেলসিয়াস এবং শীতকালীন তাপমাত্রা ৫° থেকে ১০° সেলসিয়াস হল এই জলবায়ু অঞ্চলের প্রধান বৈশিষ্ট্য ।

***

 

ক্রান্তিয় মরু জলবায়ু অঞ্চল

এশিয়া মহাদেশের আরব মরুভূমি এবং ভারত ও পাকিস্তানের থর মরুভূমি অঞ্চলে ক্রান্তিয় মরু জলবায়ু দেখা যায় ।

ক্রান্তিয় মরু জলবায়ুর বৈশিষ্ট্য—

(১) চরমভাবাপন্ন জলবায়ু,

(২) দিনে প্রচন্ড উত্তাপ ও রাতে অস্বাভাবিক ঠান্ডা,

(৩) উত্তপ্ত গ্রীষ্ম কাল । গ্রীষ্মকালীন গড় উত্তাপ ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস হলেও মধ্যাহ্নে ৪৫ ডিগ্রি থেকে ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছোয় ।

(৪) মধ্যম উষ্ণ শীতকাল । শীতকালীন তাপমাত্রা ১৬ ডিগ্রি থেকে ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস ।

মৌসুমি জলবায়ু অঞ্চল

এশিয়া মহাদেশের ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, শ্রিলঙ্কা, মায়ানমার, চিন, থাইল্যান্ড, কাম্বোডিয়া, লাওস, ভিয়েতনাম ও পশ্চিম ফিলিপাইনে মৌসুমি জলবায়ু দেখা যায় ।

মৌসুমি জলবায়ুর বৈশিষ্ট্য —

(১) উষ্ণ গ্রীষ্মকাল এবং গ্রীষ্মকালীন গড় তাপমাত্রা ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস,

(২) শুষ্ক ও নাতিশীতোষ্ণ শীতকাল, শীতকালীন গড় তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস,

(৩) প্রধানত গ্রীষ্মকালীন বৃষ্টিপাত । স্থানবিশেষে ২৫ থেকে ২৫০ সেন্টিমিটার ) 

(৪) শীত ও গ্রীষ্মে সম্পূর্ণ  বিপরীত দিকে বায়ুপ্রবাহ হল মৌসুমি জলবায়ু অঞ্চলের অন্যতম প্রধান বৈশিষ্ট্য ।

***

 

নিরক্ষীয় জলবায়ু অঞ্চল

নিরক্ষরেখার উত্তর দিকে উত্তর ও দক্ষিণ অক্ষাংশের মধ্যে অবস্থিত সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ায় নিরক্ষীয় জলবায়ু দেখা যায় ।

নিরক্ষীয় জলবায়ুর বৈশিষ্ট্য :-

(১) সারাবছর ধরেই অত্যধিক উত্তাপ ও বৃষ্টিপাত, অতিরিক্ত আর্দ্রতা এবং বার্ষিক তাপমাত্রার স্বল্প ব্যবধান হল এই অঞ্চলের জলবায়ুর প্রধান বৈশিষ্ট্য,

(২) এই অঞ্চলের গ্রীষ্মকালীন গড় তাপমাত্রা প্রায় ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস । আকাশে মেঘ না থাকলে কখনও কখনও ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস হয় । শীতকালীন তাপমাত্রা প্রায় ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস হয়, অর্থাৎ শীত ও গ্রীষ্মকালীন তাপমাত্রার পার্থক্য হয় মাত্র ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস,

এশিয়া মহাদেশের জলবায়ুর মূল বৈশিষ্ট্য

বিশালাকার আয়তন, অক্ষাংশের ব্যবধান, ভূপ্রকৃতি ও পর্বতের অবস্থান, বায়ু প্রবাহ, সমুদ্র স্রোত প্রভৃতির জন্য এশিয়া মহাদেশের জলবায়ুর এত বৈচিত্র্য পৃথিবীর অন্য কোন মহাদেশে পরিলক্ষিত হয় না । এশিয়া মহাদেশের জলবায়ুর মূল বৈশিষ্ট্য গুলি হল—

(১) অক্ষাংশের বিপুল ব্যবধানের জন্য এশিয়া মহাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে তাপমাত্রার বিরাট পার্থক্য দেখা যায় ।  গ্রীষ্মকালে মধ্য এশিয়ার গড় তাপমাত্রা ৩৫° সেলসিয়াস, দক্ষিণ এশিয়ার ২৭° সেলসিয়াস ও উত্তর এশিয়ার ২০° সেলসিয়াস থাকলেও উত্তর-পশ্চিম ভারত, আরব উপদ্বীপ প্রভৃতি এলাকায় সর্বাধিক উষ্ণতা ৫০° সেলসিয়াসে পৌঁছে যায় ।