WB Class X

WBBSE class X study related contents

নাতিশীতোষ্ণ তৃণভূমি বা স্টেপস অঞ্চল

নাতিশীতোষ্ণ তৃণভূমি বা স্টেপস অঞ্চল :- এশিয়া মহাদেশের দক্ষিণ পশ্চিম সাইবেরিয়া এবং পূর্ব মঙ্গোলিয়ায় এই ধরনের জলবায়ু দেখা যায়।

জলবায়ুর বৈশিষ্ট্যঃ (১) এই অঞ্চলে শীতকালে খুব শীতল কিন্তু গ্রীষ্মকালে বেশ গরম ; (২) শুষ্ক পশ্চিমা বায়ুর প্রভাবে এখানে বৃষ্টিপাত খুবই কম হয়।

ভুমধ্যসাগরীয় জলবায়ু অঞ্চল

ভুমধ্যসাগরীয় জলবায়ু অঞ্চল:- এশিয়া মহাদেশের ভূমধ্যসাগরের নিকটবর্তী অতি সামান্য অঞ্চল যেমন তুরস্ক, লেবানন, সিরিয়া, এবং ইস্রাইলে ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু দেখা যায়।

জলবায়ুর বৈশিষ্ট্যঃ প্রধানত (১) শীতকালীন বৃষ্টিপাত (২৪-৭৫ সেমি) , (২) বৃষ্টিহিন শুষ্ক গ্রীষ্মকাল এবং নাতিশীতোষ্ণ মৃদু জলবায়ু ( গ্রীষ্মকালীন তাপমাত্রা ২১ ডিগ্রি থেকে ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং শীতকালীন তাপমাত্রা ৫ ডিগ্রি থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস) হল এই জলবায়ু অঞ্চলের প্রধান বৈশিষ্ট্য ।

ক্রান্তিয় মরু জলবায়ু অঞ্চল

ক্রান্তিয় মরু জলবায়ু অঞ্চল:- এশিয়া মহাদেশের আরব মরুভূমি এবং ভারত পাকিস্তানের থর মরুভূমি অঞ্চলে এই ধরনের জলবায়ু দেখা যায়।

জলবায়ুর বৈশিষ্ট্যঃ (১) চরমভাবাপন্ন জলবায়ু, (২) দিনে প্রচন্ড উত্তাপ ও রাতে অস্বাভাবিক ঠান্ডা , (৩) উত্তপ্ত গ্রীষ্ম কালে ( গ্রীষ্মকালীন গড় উত্তাপ ৩৫ ডিগ্রি হলাও মধ্যাহ্নে ৪৫ ডিগ্রি  থেকে ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস) , (৪) মধ্যম উষ্ণ শীতকাল ( শীতকালীন তাপমাত্রা ১৬ ডিগ্রি থেকে ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস ) এবং (৫) অতি সামান্য বার্ষিক বৃষ্টিপাত ( বছরে গড়ে ২৫ সেমি ) হল এই অঞ্চলের জলবায়ুর প্রধান বৈশিষ্ট্য ।

মৌসুমি জলবায়ু অঞ্চল

মৌসুমি জলবায়ু অঞ্চল:-     এশিয়া , ভারতবর্ষ, পাকিস্তান, বাংলাদেশ , শ্রিলঙ্কা , মায়ানমার, চিন , থাইল্যান্ড, কাম্বোডিয়া, লাওস , ভিয়েতনাম ও পশ্চিম ফিলিপাইনে মৌসুমি জলবায়ু দেখা যায়।

জলবায়ুর বৈশিষ্ট্যঃ (১) উষ্ণ গ্রীষ্মকাল ( গ্রীষ্মকালীন গড় তাপমাত্রা ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস) , (২) শুষ্ক ও নাতিশীতোষ্ণ  শীতকাল  ( শীতকালীন গড় তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস) , (৩) প্রধানত গ্রীষ্মকালীন বৃষ্টিপাত  ( স্থান  বিশেষে ২৫ থেকে ২৫০ সেন্টিমিটার) এবং (৪) শীত ও গ্রিষ্মে সম্পূর্ণ  বিপরীত দিকে বায়ুপ্রবাহ হল মৌসুমি জলবায়ু অঞ্চলের অন্যতম প্রধান বৈশিষ্ট্য ।

নিরক্ষীয় জলবায়ু অঞ্চল

নিরক্ষীয় জলবায়ু অঞ্চল :- নিরক্ষরেখার উত্তর দিকে উত্তর ও দক্ষিণ অক্ষাংশের মধ্যে অবস্থিত সিঙ্গাপুর , মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়া  নিরক্ষীয় জলবায়ু দেখা যায়।

এশিয়া মহাদেশের বিভিন্ন জলবায়ু অঞ্চল

এশিয়া মহাদেশের বিভিন্ন জলবায়ু অঞ্চল :-

জলবায়ুর পার্থক্য অনুসারে এশিয়া মহাদেশকে ১১টি জলবায়ু অঞ্চলে ভাগ করা যায়, যেমনঃ (১) নিরক্ষীয় জলবায়ু অঞ্চল (২) মৌসুমি জলবায়ু অঞ্চল (৩) ক্রান্তিয় মরুভূমি অঞ্চল (৪) ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু অঞ্চল (৫) নাতিশীতোষ্ণ তৃনভুমি অঞ্চল (৬) নাতিশীতোষ্ণ মরুভূমি অঞ্চল (৭) চৈনিক জলবায়ু অঞ্চল (৮) মাঞ্চুরিয়ান জলবায়ু অঞ্চল (৯) তাইগা জলবায়ু অঞ্চল (১০) তুন্দ্রা জলবায়ু অঞ্চল (১১) এবং পার্বত্য জলবায়ু অঞ্চল ।