Oxidation

জারণ ও বিজারণ একসঙ্গে ঘটে

জারণ ও বিজারণ একসঙ্গে ঘটে [Oxidation and reduction take place simultaneously]:-

রাসায়নিক বিক্রিয়ায় জারণ ও বিজারণ প্রক্রিয়া একই সঙ্গে ঘটে । অর্থাৎ, জারণ ও বিজারণ ক্রিয়া পরস্পরের পরিপূরক । কোনো বিক্রিয়ায় জারণ-ক্রিয়া ঘটলেই বিজারণ ক্রিয়াও ঘটবে । এই রকম রাসায়নিক বিক্রিয়াকে রেডক্স বিক্রিয়া [Redox reaction] বলা হয় ।

জারণ ও বিজারণ [Oxidation and Reduction]

জারণ বিজারণের ইলেক্ট্রনীয় মতবাদ [Electronic theory of oxidation and reduction]

ভুমিকা [Introduction]:- জারণ ও বিজারণ রসায়নে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিক্রিয়া । সাধারণত কোনো মৌলে বা যৌগে অক্সিজেনের সংযুক্তি বা কোনো যৌগ থেকে হাইড্রোজেনের বিযুক্তিকে জারণ এবং কোনো মৌলে বা যৌগে হাইড্রোজেনের সংযুক্তি বা কোনো যৌগ থেকে অক্সিজেনের বিযুক্তিকে বিজারণ বলা হয় ।

ছোট প্রশ্ন ও উত্তর : [জারণ ও বিজারণ ]

প্রশ্ন:-  একটি জারক গ্যাসের নাম কী ?

উত্তর:-  একটি জারক গ্যাসের নাম হল অক্সিজেন (O2) ।

 

প্রশ্ন:-  একটি বিজারক গ্যাসের নাম কী ?

উত্তর:-  একটি বিজারক গ্যাসের নাম হল হাইড্রোজেন (H2) ।

 

প্রশ্ন:-  জারক এবং বিজারক দুই হিসেবে কাজ করে এমন দুটি পদার্থের নাম কী ?

উত্তর:-  জারক এবং বিজারক উভয় রূপে কাজ সালফার ডাই-অক্সাইড (SO2) এবং হাইড্রোজেন পারক্সাইড (H2O2) ।

 

তৃতীয় অধ্যায় : জারণ বিজারণের ইলেক্ট্রনীয় মতবাদ

জারণ বিজারণের ইলেক্ট্রনীয় মতবাদ [Electronic theory of oxidation and reduction]

• ইলেকট্রনীয় মতবাদ [Electronic theory]:-

► জারণ [Oxidation]:-

►বিজারণ [Reduction]:-

• জারণ সংখ্যা [Oxidation Number]:-

▲ জারক পদার্থ ও বিজারক পদার্থ [Oxidising and Reducing agents]:- 

• জারক পদার্থ [Oxidising agents]:-

• বিজারক পদার্থ [Reducing agents]:-

• কয়েকটি জারক পদার্থ :-

• কয়েকটি জারকের জারণ ক্ষমতার উদাহরণ :-

• কয়েকটি বিজারক পদার্থ :-

রাসায়নিক আবহবিকার

►রাসায়নিক আবহবিকার [Chemical Weathering]

সংজ্ঞা :- যে আবহবিকারের মাধ্যমে শিলা গঠনকারী বিভিন্ন খনিজ পদার্থগুলির ওপর বায়ুমন্ডলের প্রধান উপাদান সমূহ বিশেষ করে অক্সিজেন (O2), কার্বন ডাই-অক্সাইড (CO2), জ্বলীয় বাষ্প প্রভৃতির বিক্রিয়ার ফলে কঠিন শিলা বিয়োজিত হয় এবং মূল খনিজ পদার্থগুলো নতুন গৌণ খনিজে পরিণত হয়ে মূল শিলা শিথিল হয়ে পড়ে, তাকে রাসায়নিক আবহবিকার [Chemical Weathering] বলে । বৃষ্টিবহুল উষ্ণ অঞ্চলে রাসায়নিক আবহবিকারের প্রাধান্য বেশি পরিলক্ষিত হয় ।

 

অধ্যায়ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর:[২য় অধ্যায়- ১ম অংশ]

প্রশ্ন-১. আবহবিকার [Weathering] কাকে বলে এবং কয় প্রকার ? 

যে প্রক্রিয়ায় আবহাওয়ার বিভিন্ন উপাদান, যেমন- উষ্ণতা, আদ্রতা, বায়ুপ্রবাহ, বৃষ্টিপাত, তুষারপাত প্রভৃতির সংস্পর্শে এসে ভূত্বকের ওপরের অংশের শিলাস্তর ধীরে ধীরে ভেঙে বা চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে মূল শিলাস্তর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে মূল শিলাস্তরের ওপরেই পড়ে থাকে, সেই প্রক্রিয়াকে আবহবিকার [Weathering] বলা হয়। আবহবিকারের ফলে চূর্ণ বিচূর্ণ শিলাজাত পদার্থগুলো মূল শিলা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে সেখানেই পড়ে থাকে, কিন্তু অন্যত্র অপসারিত হয় না ।