প্রথম ইঙ্গ-মহীশূর যুদ্ধ

প্রথম ইঙ্গ-মহীশূর যুদ্ধ [First Anglo-Mysore War] : হায়দর আলির সঙ্গে ইংরেজদের খুব একটা ভাল সম্পর্ক ছিল না । হায়দর আলির শক্তি বৃদ্ধিতে ইংরেজরাও ঈর্ষান্বিত হয়েছিলেন । হায়দর আলি ফরাসিদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখে চলতেন । তৃতীয় কর্ণাটকের যুদ্ধের সময় হায়দর ৪,০০০ অশ্বারোহী সৈন্য দিয়ে ফরাসিদের সাহায্য করেছিলেন এবং চাঁদ সাহেবের পুত্র রাজা সাহেবকে তাঁর অধীনে চাকুরী দিয়েছিলন । এই ফরাসিরা ছিল ইংরেজদের প্রধান প্রতিপক্ষ । এজন্য ইংরেজরা হায়দর আলির উপর ভীষণ রেগে ছিল ও তাদের শত্রু বলে মনে করত । বস্তুত ফরাসিদের সঙ্গে হায়দর আলির ঘনিষ্ট সম্পর্ক -ই হল প্রথম ইঙ্গ-মহীশূর যুদ্ধের [First Anglo-Mysore War] অন্যতম কারণ । ১৭৬৬ খ্রিস্টাব্দে মাদ্রাজে ইংরেজগণ হায়দার আলির বিরূদ্ধে হায়দরাবাদের নিজামকে [Nizam of Hyderabad] সামরিক সাহায্য দানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন । অবশ্য ইংরেজরা নিজামের কাছ থেকে উত্তর সরকার নামক ভুখন্ড লাভ করেছিলেন । ১৭৬৭ খ্রিস্টাব্দে ইংরেজ ও নিজামের মিলিত বাহিনী মহীশূর আক্রমণ করে । কিন্তু হায়দর আলি এই যুদ্ধে ইংরেজ ও নিজামের মিলিত বাহিনীকে পরাজিত করে ইংরেজ অধিকৃত মাদ্রাজ অধিকার করতে উদ্যত হন । এই যুদ্ধকেই প্রথম ইঙ্গ-মহীশূর যুদ্ধ [First Anglo-Mysore War] বলা হয় । অগত্যা ১৭৬৯ খ্রিস্টাব্দে মাদ্রাজের ইংরেজ কাউন্সিলার হায়দর আলির সঙ্গে মাদ্রাজ চুক্তি [Treaty of Madras] স্বাক্ষর করতে বাধ্য হন । এই চুক্তির শর্ত অনুসারে ইংরেজ ও মহীশূর পরস্পরের বিজিত স্থানসমূহ প্রত্যর্পণ এবং বন্দি বিনিময় করেন । আরও ঠিক হয়, অন্য কোনো শক্তি মহীশূর আক্রমণ করলে ইংরেজগণ মহীশূরকে সাহায্য দানে বাধ্য থাকবেন । এই ভাবেই প্রথম ইঙ্গ-মহীশূর যুদ্ধের অবসান হয় । 

***