দক্ষিণ আফ্রিকা

দক্ষিণ আফ্রিকা:- দক্ষিণ আফ্রিকা দীর্ঘদিন বর্ণবিদ্বেষী শ্বেতাঙ্গ ব্রিটিশ সরকারের শাসনাধীন ছিল । শ্বেতাঙ্গ ব্রিটিশ সরকার দক্ষিণ আফ্রিকার মানুষদের ওপর সীমাহীন শাসন, শোষণ ও অত্যাচার চালাচ্ছিল । শ্বেতাঙ্গ প্রিটোরিয়া শাসনের বর্ণবৈষম্যবাদের বিরুদ্ধে আন্দোলন করার জন্য নেলসন ম্যান্ডেলার নেতৃত্বে ১৯১২ খ্রিস্টাব্দে জাতীয় মুক্তি সংস্থা আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেস (ANC) স্থাপিত হয় । নেলসন ম্যান্ডেলার নেতৃত্বে এই সংস্থা শ্বেতাঙ্গ সরকারের কাছে মানবাধিকার ও আফ্রিকার কালো মানুষদের জন্য সমমর্যাদা ও সমানাধিকার দাবি করেন । ফলে ব্রিটিশ সরকার নেলসন ম্যান্ডেলাকে গ্রেফতার করে কারাগারে আবদ্ধ করে রাখেন । দীর্ঘ ২৭ বছর কারাদন্ড ভোগ করার পর অবশেষে তিনি মুক্তি পান । তারপর চলতে থাকে দক্ষিণ আফ্রিকার মানুষদের একটানা স্বাধীনতা সংগ্রাম । ১৪ - ১৫ বছরে প্রায় দশ হাজার ছেলেমেয়েকে কারাগারে বন্দি করে রাখা হয় । অসংখ্য তরুণ বীর ও বীরাঙ্গনার ফাঁসি হয় । শেষ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার মানুষদের স্বাধীনতা সংগ্রাম জয়যুক্ত হয় । ১৯৯৪ খ্রিস্টাব্দ থেকে ১৯৯৯ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত নেলসন ম্যান্ডেলা সদ্য স্বাধীনতা প্রাপ্ত দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম রাষ্ট্রপতি নিযুক্ত হন । পর্যায়ক্রমে আফ্রিকার অন্যান্য দেশ যথা—  ঘানা, নাইজিরিয়া, মরক্কো, টিউনিশিয়া, আলজিরিয়া, ক্যামেরুন, কঙ্গো, কেনিয়ার জনগণ স্বাধীনতা যুদ্ধে জয়ী হয়ে ঔপনিবেশিক শাসন ও শোষণ থেকে মুক্তিলাভ করে । উত্তর আফ্রিকার মিশর ও সুদানও কালক্রমে ইংরেজদের শাসন ও শোষণ থেকে মুক্তি পায় ।

***