ডাম্বারটন ওক কনফারেন্স

ডাম্বারটন ওক কনফারেন্স:- ১৯৪২ খ্রিস্টাব্দের ১লা জানুয়ারি অনুষ্ঠিত ওয়াশিংটন সম্মেলনের পর বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠার প্রয়াসকে আরও ত্বরান্বিত করতে ১৯৪৩ খ্রিস্টাব্দের ৩০ অক্টোবর মস্কো সম্মেলনে আবার আমেরিকা, ইংল্যান্ড, রাশিয়া এবং চিন আরও একটি ঘোষণাপত্র জারি করে । এতে বলা হয় যে তারা যথা শীঘ্র সম্ভব পরস্পর সমতা, সমমর্যাদা ও সার্বভৌমত্বের ভিত্তিতে একটি বিশ্ব সংস্থা গড়ে তুলতে উদ্যোগ নেবে । যে উদ্যোগে বিশ্বের ছোট বড় শান্তিকামী দেশ সামিল হতে পারবে । এই উদ্দেশ্যে তিন প্রধান শক্তিধর দেশ আমেরিকা, ইংল্যান্ড ও রাশিয়া ওয়াশিংটনের অদূরে ডাম্বারটন ওক নামক স্থানে ১৯৪৪ খ্রিস্টাব্দের আগস্ট থেকে অক্টোবর মাস পর্যন্ত এক সভায় মিলিত হয়ে সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের এক রূপরেখা প্রস্তুত করেন । পরে ১৯৪৫ খ্রিস্টাব্দের ফেব্রুয়ারি মাসে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি ফ্রাঙ্কলিন রুজভেল্ট, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিল ও সোভিয়েত রাশিয়ার নেতা স্ট্যালিন রাশিয়ার কৃষ্ণসাগরের তীরবর্তী ক্রিমিয়ার ইয়াল্টা প্রদেশে এক সম্মেলনে মিলিত হয়ে ডাম্বারটন ওক সম্মেলনে গৃহীত সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের রূপরেখায় কিছু নতুন প্রস্তাব সংযোজিত করেন । ক্রিমিয়ার ইয়াল্টা সম্মেলনেই আন্তর্জাতিক শান্তি প্রতিষ্ঠার শুভ উদ্যোগ গৃহীত হয়  ।

***